Hits: 19

কাশ্মীরের কান্না

জুলুমের বিষে পৃথিবী অস্থির, বিপন্নতায় কাতর! এ ভূ-মন্ডলের প্রতিটি বায়ু কণায় এ বিষ দানবের লেগেছে আঁচড়। মহামারীর ন্যায় রক্তে মিশেছে জালিমের অন্যায় বিষ, বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত আমাদের বিবেক, মন, সব; ফলশ্রুতিতে পরাস্ত অন্যায়-পাপাচারের প্রতিবাদে।

সময় শেষে

কথা প্রসঙ্গে.. হ্ঠাৎ বললো এমন কোন কাজ করোনা যেটা গুনায়ে জারিয়া হয় বরং এমন কিছুই করো যেটায় সাদগায়ে জারিয়ার পথ খুলে যায়। কথাটা হৃদয়ে গিয়ে লাগলো তাইতো! জানা বা অজানা অবস্থায় আমার দ্বারাও গুনায়ে জারিয়ার পথ তৈরি হতে পারে কি ভয়ংকর!!…

অহেতুক ইগো এবং আমরা

মাঝে মাঝে আমি নিজেই কনফিউজড হয়ে যাই ইগো কি? কেন ইগো থাকে মানুষের মাঝে? এটা কি খুব দরকারী? কিন্তু আশপাশের কিছু মানুষকে দেখে বুঝেছি তারা কতটা স্ট্রিকলি ইগো ধারন করে রাখে তাদের মনে। ইগো একধরনের অহমিকা, স্বার্থপরতা, নিজেকে নিয়ে বড়াই…

গন্তব্য

চলতে চলতে.. পারি দিয়েছি অনেকটা পথ মেনেছি অন্ধ অনুকরনে অনেক মত। এভাবেই বয়ে যাচ্ছে সময়ের স্রোত ইতোমধ্যেই পার করেছি জীবনের ২৩-২৪ বসন্ত অশান্ত তেজী বর্বর জৌলুসে মজে.. পারিনি মেটাতে বিবেক আত্মার হক শুনেও শুনিনি অসহায় সমাজের আর্তনাদ আর…

উপলব্ধি

প্রবাহমান সময়ের গহীনে আমরা বন্ধী সময়ের পরতে পরতে আমাদের একেকজনের নিঃশ্বাসের গুটি সাজানো, শুধু একটা দানের খেল মাত্র নিমেষেই হতে পারে এই বেহিসাবি জীবনের শেষ। কখন কার গুটির দান আসে কেউ বলতে পারিনা। অথচ সময়কে উপেক্ষা করার কি তীব্র সাহস…

যাপিত জীবনের প্রবাহমান কিছু ঘটনা এবং আমাদের ভবিষ্যৎ ২

ঘটনা ১. ________ ক্লাসরুমে প্রবেশ করেই - - সত্যিই পূজা দেখতে গিয়েছিলাম টিচার। - তোমাকে যেতে মানা করেছিলাম বাবু, কেনো গেলে? - বাবা নিয়ে গেছে। - বাবাকে বলতে যাওয়া যাবেনা, টিচার মানা করেছে, আর আল্লাহ এংরি হয়। - আমি পড়তে বসলে বাবা নিয়ে…

প্রবাহমান দিনযাপন এবং আমাদের ভবিষ্যত

ঘটনা ১. _________ -টিচার! আমি পূজা দেখতে যাবো বাবার সাথে। - নো! পূজা দেখতে যাওয়া যাবেনা, মূর্তি দেখলে আল্লাহ এংরি হয়ে যাবে। তুমিনা গুড গার্ল! মূর্তি দেখতে যাবেনা ঠিকাছে। - মূর্তি দেখবোনা টিচার, ওখানে মেলা হয় তাই ঘুরতে যাবো। আর দূর…

বাসনা

একটি সন্ধ্যাকালীন গল্প হবো চোখের কোনে হারিয়ে যাবো গহীন রাতে ডুবে থাকা বইয়ের পাতা হবো ছুঁয়ে যাবো অনবরত শেষ রাত্রের অজুর পানি হবো ডেকে বলবো সুবহে সাদিক আর কিছুক্ষণ পরেই! অন্তত দু রাকাত পড়ি চলো একসাথে মোনাজাত যাচি হৃদয় গলিয়ে পংকিলতা…

মিথ্যার বেসাতি

মিথ্যার বেসাতি করতে করতে কখন যেন নিজেই জ্বলন্ত মিথ্যা হয়ে গেছি। এখন বোঝা দায় হয়ে গেছে “আমি” মিথ্যায় কতটা সত্য আছে? হয়তো সত্যের কোন লেশই নেই নাকি পুরোটাই সত্য? উহ! কেমন যেন মাথা ঝিম মেরে ওঠে গিজগিজে মিথ্যার চাকচিক্যে 'মিথ্যা' নাহয়ে…

সময়ের পদচারণ

পথের ধারেই প্রতিক্ষীয়মান..কিছু চটপটে সময়! আলিঙ্গনেই হবে হয়তো আরেকটু চঞ্চল। আবার পথের ধারেই প্রতিক্ষীয়মান..কিছু বোবা সময়! আলিঙ্গনেই মিলবে হয়তো অমৃত পেয়ালা, তাই মাড়াতে হবে একটু আধটু কাদা। তবেই অন্তরে বয়িত হবে শীতল শান্তির ঝর্ণাধারা। আমি…

প্রত্যয়ে দৃঢ়তা

শুদ্ধ মানুষ হবার গল্প জানিনা, কিভাবে শুদ্ধ হব তাও জানি অল্প! তবে মনের মরমে ইচ্ছা প্রচন্ড। শুদ্ধ হবো, শুদ্ধ করবো সমাজ এ প্রান্ত থেকে ওপ্রান্ত। . তুমি কি জানো?? তোমার মধ্যেও আছে পবিত্রতার মহাসমূদ্র! সেই সমূদ্রের খানিক আগে শুধু ময়লার…

প্রতীক্ষা

হৃদয় নামক মাংসপিণ্ড আছেনা!! ওখানে খুব যন্ত্রনা হয়। যন্ত্রনারা সারাক্ষণ নিস্পেশিত করে, বেদনার আকাশ হরহামেশাই কাঁদে রাতের গহীনে। জানি শুদ্ধ বিপ্লবের দরকার... হৃদয়ে কেন এত অশুদ্ধ হাহাকার?? হামেশাই তপ্ততার ঘরে অবস্থান হোক দৃঢ়।…

মৃত্যু

মৃত্যু! এইতো আমার একদম পাশে। ছুঁতে গিয়েও ছোঁয়না! আমাকে সুযোগ দেয়, বিবর্ণতায় রঙ লাগাতে। বুনো পথে বিষ কাটা সরিয়ে, ফুলের গাছ লাগাতে। মৃত্যুর সাথে আমিও খেলি.. সুযোগ পেয়ে আরও কিছু বিবর্ণতা ধার নেই সময়ের কাছে। হাসি, অভিনয়ের মধ্য দিয়ে…

শুদ্ধ নদী

বুকের ভেতর একটা নদী প্রবাহিত করতে চাই যার স্রোতে অচ্ছুত সব সংকীর্ণতা, অপ্রাপ্তির কদর্যতা ভেসে যাবে। দিয়ে যাবে একটা নৌকা, বয়ে নিয়ে যাবো বহুদুর! বহুদূরের সীমানায় প্রতীক্ষিত একগুচ্ছ কাশফুল। ওখানে হাসির ফোয়ারা বয়, আবার মাঝে মাঝে দিতে হয়…

প্রার্থনা শেষে

সুবহে সাদিকের প্রার্থনা শেষে, প্রভাতের শান্ত আঁচলে মিশে; দিনের শুরুটা হয় বেশ নির্মল। উদয়ের রবিতে থাকে প্রেম, প্রতিটা কাজের শেষে থাকে বরকত, পাই তোমার ভালোবাসা অসীম রহমত। ঘুম আর তিনটে গিট খোলার মাঝে, মিশ্রিত হয় ব্যাপকতর আনন্দ উল্লাস;…