Hits: 4

ক্লান্ত নকীব

0

আমার ঈমানের পাত গুলো খসে যেতে থাকে একটা একটা করে,
উঁইয়ে খাওয়া শোলার বেড়ার মত ঝুড়ঝুড় করে পরতে থাকে
উহু কি অসহ্য যন্ত্রনায় সময় নদীর প্রবাহ স্রোতে হারিয়ে যায় ভালো কথা!
অসহ্য বিষাদ যন্ত্রনায় কোকাতে থাকে আমার বিবেক।
আমি আমার বিবেকের গলা চিপে ধরেছি আষ্ঠেপৃষ্ঠে
গ্রীষ্মের প্রচন্ড দাবদাহের মত আমার আকীদা হাসফাস করে,
ক্লান্ত হয়ে যায় বুকের বাম পাশে যতনে পুষে রাখা স্বপ্ন গুলো।
কিযেন হ্যা, হতে চেয়েছিলাম যুগের রাহাবার
কিন্তু , কিন্তু শুধু ভালো কথা ফেড়ি করে বেড়াই
বাহাস করে বেড়াই ,প্রতিযোগীতার অনল ছড়াই ভালো কথার তুবরী ছোটাই
ওহ্ কিযে বিষাদ বেদনার জাবর হয় সেখানে! শুধু বাদ পরে যায় ভালো কাজকরা।
স্বপ্নের পাখা গজায় , শাখা গজায় স্বপ্ন কুড়াই স্বপ্ন দেখাই
সবই কেবল টলমল চোখে গুজে রাখা পানির মত,
আহা এ নকীব ই কি ছিলো জিন্দেগীর কলিজায়, কিযেন চূড়ান্ত সে নকীব!
হাতরাই, হাতরাই আর খুজেফিরি সে মন্জিল!
জানিতো গুনাহর প্রাসাদ থেকে তাওবার কুড়েঘর অনেক মজবুত ।
ওহে প্রভু! তুমিকিজানো আমি এ দুমরে মুচরে যাওয়া ঈমাণে বারবার তোমার দরগায় তাওবার দরখাস্ত রাখি।
এ কলিজার বড় ব্যাথার সুরে তোমায় বলি ভালবাসি ,
বিষাদে নীল হয়ে যাওয়া হৃদয়তন্ত্রীতে তোমার মীনারের সুর তোলে
ইস কী করূণ সে সুর! বড় ব্যাথা যে এ নকীব জুড়ে তাহাই ধ্বনিত হয় কর্ণ -কুহরে
বড় সাধ জাগে ঈমাণের ঝলমলে এক ইমারতের ।

Hits: 4

Comments
Loading...