Hits: 0

তোমাকে আমার বড় প্রয়োজন

0

মানুষেরা শুধু মানুষের ভেতর থেকে পৃথক হয়ে যায় নিরন্তর।
তাই,সহস্র বছর পূর্ব হতে অদ্যাবধি
আমার ভেতরে যে “আমি” গড়ে ওঠেছিলো
তাকে আমি নির্বাসন দিলাম স্বেচ্ছায়।
এখন আমি ভারহীন একলা এক ধান শালিকের মতো…
একলা জেগে ওঠা চরের মতো আদিগন্ত সমুদ্রের মাঝে।
বিশ্ব চরাচরের অলিতে গলিতে হাঁতড়ে
এখন আর আমাকে খুঁজিনা,
এখন আমি স্বার্থপরতার চাবুক ছুঁড়ে ফেলে দিয়ে তোমাকে খুঁজতে চাই।
তোমাকে খুঁজে ফিরি অস্তিত্ব ও অস্তিত্বহীনের মাঝামাঝিতে,
ঝরে পড়া পাতাটির বোঁটা খুলে মাটিতে পতনের কারণে তোমাকে অনুভব করতে চাই,
ক্লান্তি ও অবসন্নতার শেষে আমার বেঁচে-বর্তে থাকার কারণে তোমাকে খুঁজতে চাই,
ফুসফুসের হাঁপড়ের মতো ওঠানামার পশ্চাতে তোমার একচ্ছত্র অধিকার জেনেও সবকিছুতেই কী আশ্চর্যরকমভাবে আমি শুধু তোমাকেই খুঁজতে চাই..
তোমাকে চাই আমার দুঃখবিহীন দুঃখের ভস্ম কয়লার অবশিষ্টাংশে,আমার গহন দীর্ঘশ্বাসে।
আবেগের বাগানে প্রজাপতি উড়ে যাওয়ার উৎফুল্ল আয়োজনেও তোমার উপস্থিতি আমি বারবার চেয়েছি রহমান!
পৃথিবী,আকাশ,মহাকাশ সমস্তটা নিংড়ে নিয়ে এখন সর্বত্রই তোমাকে খুঁজে পাওয়া আমার একান্ত ব্যক্তিগত প্রয়োজন..।।

Hits: 0

Comments
Loading...