Hits: 0

সমাজ পরিবর্তন না নিজেকে পরিবর্তন? পর্ব-১

0

আমরা সমাজ নিয়ে ভাবার আগে, অনেক সময়েই নিজেকে নিয়ে ভাবতে ভুলে যাই। যদিও “আমি ঠিক আছি কি? আমার উদ্দেশ্য ভালো তো? কাউকে অনৈতিক পথে উসকানি কিংবা বিপথগামী করছে কি”?- এসব চিন্তায় নিজেকে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো উচিত। যাকে বলে আত্ম-উপলব্ধি।
পৃথিবীতে অনেক মানুষই আছে-নিয়মমাফিক ‘আসে’,আর ‘যায়’…খেয়ে দেয়ে বেঁচে থাকাটাকেই যারা জীবন বলে- আমরা কি তাদের দলে? একবার না হয় জিজ্ঞাস করি নিজেকে। হ্যা, আসা আর যাওয়া- এসব যখন নিরুদ্দেশ হয় তখন উপলব্ধির প্রয়োজন কিন্তু, নিরব থাকার মধ্যেও যদি উদ্দেশ্য কিংবা হিকমত থাকে, তবে সেক্ষেত্রে তেমন থাকাই বুদ্ধিমত্তার কাজ।

লক্ষ্য করে দেখবেন-এই পৃথিবী, এই সমাজ সেইসব লোকদের বীর কিংবা বিপ্লবী বলে যারা রাজনৈতিক ময়দানে নিজের বীরত্ব দেখাতে পারে, নেতার মতো জোরালো একটা বক্তব্য দিয়ে- নিজের অবিবাহিত জীবনের স্তুতি গাইতে পারে। যদিও আসল বিপ্লবী তো তারা যারা নিজের মনের সাথে প্রতিনিয়ত বিপ্লব করে। দায়িত্ব পালনের জন্য থাকে সচেতন। যুদ্ধ করে সেই কুপ্রবৃত্তির সাথে যে বার বার তার পবিত্র মনকে কুলষিত করার চেষ্টা করে। একেই তো বলে প্রকৃত বিপ্লব! এটাই তো হলো নিজের দূর্বলতাকে জয় করা। এটাই তো হলো নিরব সংগ্রাম। যার প্রতিদান আছে সেই চিরস্থায়ী জীবনে।
সুতরাং, আমি মনে করি- সমাজ পরিবর্তনের চিন্তার সাথে সাথে যে বিষয়গুলো মাথায় রাখা উচিত- (বিশেষ করে নিজের ব্যাপারে) তাহলো-

# আমরা যাতে নিজেকে নেতা না ভেবে খাদেম ভাবি। নিঃস্বার্থভাবে কাজ করি। আর কখনো স্বার্থ যদি চলে আসে তাহলে জিজ্ঞাস করি- এটা ভালো স্বার্থ নাকি খারাপ? আমাদের স্বার্থ নিজের জন্য কিংবা অন্যের জন্য প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে ক্ষতিকর কিনা।

# নিজের শত্রুর সাথেও ভালোভাবে কথা বলি। মতের মিল না হলেও সে যাতে আমাদের ব্যাপারে বলতে বাধ্য হয়- ‘নাহ! যা হোক না হোক, মানুষটা ভালো’।
# আক্রমণাত্মক কথা না বলে বুদ্ধিবৃত্তিক, যৌক্তিক কথা বলা উত্তম। অথবা চুপ থাকা উচিত। রাগকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারলেই তো আমরা সবচেয়ে বেশি শক্তিশালী!
# একটা মানুষের সবদিক খারাপ হয় না। তাই কিছু একটা দেখে কারো ব্যাপারে ঢালাওভাবে মন্তব্য করা ঠিক নয়। অপরপক্ষের দিকটা যখন আমরা বুঝতে পারবো- তবেই না আমরা মানবদরদী, তবেই না সমাজ পরিবর্তনের আশা করতে পারি।
# পৃথিবীর দুটি চমৎকার, স্পষ্ট ও ছোট শব্দ হলো- ‘হ্যা’ ও ‘না’। এই শব্দ দুটি কাউকে কষ্ট দিক বা শান্তি দিক, তবে অন্তত ধোঁকা দেয় না। তাই এই শব্দ দুটি বলার সাহস রাখা উচিত।

চলবে…

Hits: 0

Comments
Loading...