আমেরিকা এবং রাশিয়ার দূরত্ব ৩.৮ কিলোমিটার !

১৭২৮ সালের ১৬ই আগস্ট সকালে ভিটাস বেরিং বিষন্নমুখে নিজের জাহাজ ঘুরে ঘুরে দেখছিলেন আর ক্রুদের কর্কশ ভাষায় নানান নির্দেশনা দিচ্ছিলেন। গত কয়েকদিনের অশান্ত সমুদ্র যাত্রায় বেশ কাহিল তার ক্রুরা। জাহাজের অবস্থাও নাজুক। পরিস্থিতি সামলে কম্পাস হাতে চার্টে মনোযোগী হলেন, কতদুর এলেন আর কোথায় যাবেন সেটা দেখতে।

লুকআউটের দুই ক্রু বাইনোকুলার হাতে অবিশ্বাস নিয়ে তাকিয়ে আছে সামনের দিকে। ঘন কুয়াশায় ভালো বোঝা না গেলেও ধারণা করা যাচ্ছে সামনে দ্বীপ দেখা যাচ্ছে।

কাপ্তানকে কে জানাবে এই খবর এই নিয়ে তারা তর্ক জুড়ে দিল। কারন সামনে আসলেও দ্বীপ থাকলে হয়তো পুরস্কার মিলতে পারে আবার মিথ্যা হলে শাস্তির খগড়। কুলকিনারা না করতে পেরে দুইজনেই এক সাথে চিৎকার করতে লাগল।

কাপ্তান বেরিং যখন বাইরে এলেন ততক্ষনে দ্বীপের অবয়ব আরও স্পষ্ট হয়ে গেছে। দেখা যাচ্ছে কয়েক নটিক্যাল মাইল দূরে টেবিলের মত দেখতে দুই পাশে দুই পাথুরে দ্বীপ। পরে গ্রিক সেইন্ট ডায়ামেডের নামানুসারে এদের নামকরন করা হয় বিগ ডায়ামেডে আর লিটল ডায়ামেডে হিসেবে।

এইদুই দ্বীপের সর্বনিম্ন দূরুত্ব ৩.৮ কিলোমিটার। মানে আমেরিকা এবং রাশিয়ার সর্বনিম্ন দূরত্ব ৩.৮ কিলোমিটার। যদিও আমেরিকা আর রাশিয়া দুই মহাদেশের দুই দিকে অবস্থিত। বিগ ডায়ামেডে দ্বীপ রাশিয়ার সাইবেরিয়ার অন্তর্ভুক্ত এবং লিটল ডায়ামেডে আমেরিকার আলাস্কার অন্তর্ভুক্ত। শীতের সময় পুরো সাগর যখন বরফে পরিনত হয় তখন তাত্ত্বিকভাবে রাশিয়া থেকে আমেরিকা পায়ে হেটে অতিক্রম করা যায়। দীর্ঘদিন চালু থাকলেও কিছুদিন আগে সেটি নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এদের দূরত্ব ৩.৮ কি.মি হলেও বিগ ডায়ামেডেতে যখন সোমবার বার দুপুর ১২ টা লিটল ডায়ামেডেতে তখনও রবিবার বিকেল ৩ টা। কারন এই দুই দ্বীপের মাঝে আছে প্রায় ২ কিলোমিটার প্রস্থের আন্তর্জাতিক তারিখ রেখা। এজন্য এদের অপর নাম আগামীকাল এবং গতকাল দ্বীপ।

লিটল ডায়ামেডে ইনুপিয়াত জনগোষ্ঠীর এক গ্রাম আছে। কিন্তু বিগ ডায়ামেডের বাসিন্দাদের রাশিয়ার মুল ভূখণ্ডে নিয়ে আসা হয়েছে। এখন এটি পুরোপুরি একটি রাশিয়ান মিলিটারি বেইজ।

আমেরিকা এবং রাশিয়ার দূরত্ব ৩.৮ কিলোমিটার ! আমেরিকা এবং রাশিয়ার দূরত্ব ৩.৮ কিলোমিটার ! Reviewed by বায়ান্ন on April 03, 2021 Rating: 5

No comments:

Powered by Blogger.