বোবা ভূত

বৈশাখী নৃত্যে ডুবে যেওনা,
জীবনে কাল বৈশাখী আসতে কতক্ষণ!
এসব না পালন করলে কি ঘটবে মরণ?
শোভাযাত্রায় আদৌ কি শুভ কিছু থাকে?
নাকি অশুভ ছায়ার জাদুতে মেতে ছুটে চলো নগ্নতার দিকে!
শ্লীলতার হানী ঘটিয়ে,
কখনো কি কবরে পাঠানো যায় অশ্লীলতাকে?
কেন নিয়ম ভঙ্গের মধ্যেই
খুঁজে নিতে হবে সমস্ত আনন্দ, উৎকর্ষতাকে।
এতে হয় কতশত সময়ের ক্ষেপণ,
একটু কাজে লাগালেই হতে পারে সমাজের জাগরণ।
আসলে তোমার আমার চোখে বোবা ভূত চোখ রেখেছে,
তাই সম্মোহিত হয়ে আমরা নেচে চলি তালে তালে।
অন্যায় হচ্ছে হোক আমার কি তাতে?
আপাতত আমি আছি নিরাপদে।
এটা ভেবেই আবার বোবা ভূতের সাথে চলি ছন্দে ছন্দে।
রুখে দেয়ার ক্ষমতা কর্পূরের মত কবেই গেছে উবে!
আমাদের পাপে পৃথিবীরর দম বন্ধ হয়ে আসে,
তা জানান দেয় কম্পনে কম্পনে।
বোবা ভূতের সাথে চুম্বন কবে শেষ হবে?
কবে গলা ফাটিয়ে বলতে পারবো
কোন ভূতের আবাস হবেনা আমার দেশে।
রাত্রি শেষে থাকবেনা কোন কালো চিহ্নু,
মিলেমিশে থাকবো আমরা ভাই, ভাই, বন্ধু।
প্রতিজ্ঞ হবার সময় এখন,
সু-চিন্তিত মনে ভেবে
আসো পালনে মত্ত হই প্রভুর নিয়ম।

বোবা ভূত বোবা ভূত Reviewed by বায়ান্ন on April 14, 2016 Rating: 5

No comments:

Powered by Blogger.