জীবন খেয়া

জীবনে থাকে রঙ বেরঙের বাহারি কষ্টের গল্প।
কতটুকুই বা জানি?
কখনো কি জানার চেষ্টা করেছি অল্প সল্প?
জীবন একটা নদী..
যার দুপাড় দুটো ভিন্ন চাদরে আবৃত।
যখন রুপালি চাঁদের আলো বিকিরিত হয়,
তখন হয়তো!
এপাড়ের রঙমহলে তানপুরায় সুর ওঠে
কিংবা রাত্রির গহীনে অন্যায় হেসে ওঠে।
নড়েচড়ে ওঠে গভীর ষড়যন্ত্রের খাতা
কোন এক বদ্ধ ঘরের গোলটেবিলে।
চশমার ফাঁক গলিয়ে
চোখগুলোকে হিংস্র জানোয়ারের মতই লাগে।
কোথাও হয়তো কাঁচের বোতলে বোতলে ওঠে টুংটাং শব্দ,
আর নেশার খেলায় থাকে হর্ষধ্বনি।
এপারে জীবনের গন্ধ এমনই!
আর ওপাড়ে!
চাঁদের বিকরিত আলোর মতই
তাদের কষ্টগুলো হু হু করে ওঠে রাতের গভীরে।
একটু স্বস্তি পাওয়ার লোভে
সংগ্রাম করে যায় অবিরতভাবে।
কেউ কেউ সৎভাবে লড়তে না পেরে,
রাত্রির অন্ধকারে মিশে
অন্ধকারের মিছিল করে।
তারা লড়ে একটু অধিকার নিয়ে বাঁচার,
ওপাড়ের মানুষ এদের রক্ত শুষে
হুংকার দেয় বারবার।

এটাই কি জীবন?
নাকি সুন্দর জীবনের নামে হা হুতাশ?
জীবন ওটাই
দুপাড়ের কালো ছাপ দুর করে
বাজবে সত্যের সানাই।
স্রষ্টার নিয়ম মেনে হবে
সত্য ও সুন্দরের লড়াই।

জীবন খেয়া জীবন খেয়া Reviewed by বায়ান্ন on March 20, 2016 Rating: 5

No comments:

Powered by Blogger.