সাহায্য করা দায়িত্ব নয়,এটি একটি অভ্যাস

১.
দ্রুতগতিতে বঙ্গবন্ধু হলে সিড়ি বেয়ে দোতলায় উঠছি।কয়েক সিড়ি উঠতেই দেখি,এক পঙ্গু ছেলে সিড়ির রেলিং ধরে আস্তে আস্তে উপরে উঠছে।আমি গিয়ে তার হাতটি আমার কাঁধে তুলে দিয়ে উপরে উঠতে বললাম।
ছেলেটি সম্ভবত আমার জুনিয়র হবে।কিন্তু সে ভেবেছিলো,আমি নতুন ব্যাচ দেখে সম্ভবত সহযোগিতা করছি।তাই বললো-তুমি যাও,আমি নিজেই উঠতে পারবো।
জোর করে দোতলায় তুলে দিলাম।সে ধন্যবাদ দিলো।ভাবলাম,ওর সাথে পরিচয় হই।কিন্তু পরক্ষণেই মনে হলো,পরিচিত হলেই আমাকে ‘তুমি বলার জন্য’লজ্জা পাবে।আমিও ধন্যবাদ জানিয়ে চলে এলাম।

২.
সমাজবিজ্ঞানে ক্লাসে যাচ্ছি।সিড়িতে উঠার সময় একজনের হাত থেকে খাতা নিচে পড়ে গেলো।আমি পিছনে থাকায় খাতাটা ওর হাতে তুলে দিলাম।ওর হাবভাবে মনে হলো,আমি জুনিয়র দেখে ওর হাতে খাতা তুলে দেওয়া আমার দায়িত্ব,আর খাতা তুলে দিয়ে সেই দায়িত্বটি পালন করেছি।
অথচ দেখে মনে হলো,সে আমার জুনিয়র হবে।কিন্তু কোন ধন্যবাদ না জানিয়েই দ্রুত উপরে উঠে গেলো।

৩.
ক্যাম্পাসের কালচারটিই ব্যতিক্রম।অপরিচিত কেউ কোন সহযোগিতা করলেই ভাবে,আমার জুনিয়র তো!তাই সে এই কাজটি করছে।অথচ এই কাজগুলো প্রত্যেক মানুষের মানবিকতা থেকে করা উচিত,সেটি উঠতি গ্রাজুয়েটদের মাথায় কাজ করেনা।এদের কাছ থেকে এদের জুনিয়ররা এটি শিখছে।এবং বছরের পর বছর ধরে এই কালচারটি অব্যাহত রয়েছে।

সাহায্য করা দায়িত্ব নয়,এটি একটি অভ্যাস সাহায্য করা দায়িত্ব নয়,এটি একটি অভ্যাস Reviewed by বায়ান্ন on March 18, 2015 Rating: 5

No comments:

Powered by Blogger.